ব্রাহ্মণবাড়িয়া।।  ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে যাত্রী পারাপার বন্ধ করে দিয়েছে ভারতের আগরতলা ইন্টিগ্রেটেড চেকপোস্ট কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার (১২ মার্চ) দুপুরের পর থেকে কোনো যাত্রীকে ঢুকতে দিচ্ছেনা ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার (বিশেষ শাখা) আনিসুর রহমান  বিষয়টি জানান।তিনি জানান, সকাল থেকে মেডিক্যাল ভিসার যাত্রীদের ঢুকতে দিলেও টুরিস্ট ভিসার যাত্রীদের ভারত ভ্রমণে নিরুৎসাহিত করে বিএসএফ ও আগরতলা ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ। তবে যাদের আগরতলা বিমানবন্দর থেকে ফ্লাইট ছিল তাদের আখাউড়া ইমিগ্রেশন পুলিশের অনুরোধে ঢুকতে দেওয়া হয়। এরপর দুপুর থেকে আর কোনো যাত্রীকেই ঢুকতে দেওয়া হয়নি ভারতে। অন্তত ১০ জন বাংলাদেশি পাসপোর্টধারীকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। বিকেলে যাত্রীদের অবগতির জন্য নোটিশ ঝুলিয়ে দেয় আগরতলা ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ। ফলে আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত কূটনৈতিক, অফিসিয়াল, জাতিসংঘ, আন্তর্জাতিক সংস্থা ও বিভিন্ন প্রকল্পের ভিসাধারীরা ছাড়া অন্য কোনো ভিসার যাত্রীরা আগরতলা আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে ঢুকতে পারবে না। উল্লেখ্য, প্রতিদিন আখাউড়া আন্তজার্তিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে দুইদেশের প্রায় এক হাজার যাত্রী যাতায়াত করেন। এরমধ্যে বাংলাদেশি যাত্রীর সংখ্যাই বেশি। তবে গত কয়েকদিন ধরে করোনা ভাইরাসের প্রভাবে এই সংখ্যা অর্ধেকে নেমে আসে। এদিকে, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ এড়াতে কসবার সীমান্তহাট অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।ব্রাহ্মণবড়িয়ার জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট হায়াত উদ দৌলা খান জানান, সংক্রমণ এড়াতেই সীমান্ত হাট বন্ধ করা হয়েছে। আশুগঞ্জের তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে চায়নাসহ বেশ কয়েকটি দেশের নাগরিক কাজ করছেন। তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। নাগরিকদের সচেতন করতে নানামুখী প্রচারণা চালানো হচ্ছে। নাগরিকরা যেনো আতঙ্কিত না হয়ে পড়েন সেজন্য লিফলেট বিতরণ করে প্রচারণা চালানো হচ্ছে। "/>

আখাউড়া চেকপোস্ট ও কসবা সীমান্ত হার্ট বন্ধ ঘোষনা করেছে

12 March, 2020 : 2:44 pm ২০৯

ব্রাহ্মণবাড়িয়া।।

 ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে যাত্রী পারাপার বন্ধ করে দিয়েছে ভারতের আগরতলা ইন্টিগ্রেটেড চেকপোস্ট কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার (১২ মার্চ) দুপুরের পর থেকে কোনো যাত্রীকে ঢুকতে দিচ্ছেনা ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার (বিশেষ শাখা) আনিসুর রহমান  বিষয়টি জানান।তিনি জানান, সকাল থেকে মেডিক্যাল ভিসার যাত্রীদের ঢুকতে দিলেও টুরিস্ট ভিসার যাত্রীদের ভারত ভ্রমণে নিরুৎসাহিত করে বিএসএফ ও আগরতলা ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ। তবে যাদের আগরতলা বিমানবন্দর থেকে ফ্লাইট ছিল তাদের আখাউড়া ইমিগ্রেশন পুলিশের অনুরোধে ঢুকতে দেওয়া হয়। এরপর দুপুর থেকে আর কোনো যাত্রীকেই ঢুকতে দেওয়া হয়নি ভারতে। অন্তত ১০ জন বাংলাদেশি পাসপোর্টধারীকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। বিকেলে যাত্রীদের অবগতির জন্য নোটিশ ঝুলিয়ে দেয় আগরতলা ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ। ফলে আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত কূটনৈতিক, অফিসিয়াল, জাতিসংঘ, আন্তর্জাতিক সংস্থা ও বিভিন্ন প্রকল্পের ভিসাধারীরা ছাড়া অন্য কোনো ভিসার যাত্রীরা আগরতলা আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে ঢুকতে পারবে না। উল্লেখ্য, প্রতিদিন আখাউড়া আন্তজার্তিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে দুইদেশের প্রায় এক হাজার যাত্রী যাতায়াত করেন। এরমধ্যে বাংলাদেশি যাত্রীর সংখ্যাই বেশি। তবে গত কয়েকদিন ধরে করোনা ভাইরাসের প্রভাবে এই সংখ্যা অর্ধেকে নেমে আসে। এদিকে, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ এড়াতে কসবার সীমান্তহাট অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।ব্রাহ্মণবড়িয়ার জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট হায়াত উদ দৌলা খান জানান, সংক্রমণ এড়াতেই সীমান্ত হাট বন্ধ করা হয়েছে। আশুগঞ্জের তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে চায়নাসহ বেশ কয়েকটি দেশের নাগরিক কাজ করছেন। তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। নাগরিকদের সচেতন করতে নানামুখী প্রচারণা চালানো হচ্ছে। নাগরিকরা যেনো আতঙ্কিত না হয়ে পড়েন সেজন্য লিফলেট বিতরণ করে প্রচারণা চালানো হচ্ছে।

[gs-fb-comments]
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com