আমরা সময়ের কথা সময়ে বলি।

Advertisement

সরাইলে সরকারি চাল আটকের ঘটনায় মোবাইল কোর্টে জরিমানা দিয়ে ছাড়

সরাইল 30 April 2020 ৪৩৭

সরাইল।।
সরাইলে সরকারি চাল আটকের ঘটনায় মোবাইল কোর্টে জরিমানা দিয়ে ছাড়। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে সরকারি ত্রাণের ১০ বস্তা চালসহ রফিক মিয়া নামে একজনকে আটক করে থানা পুলিশ। বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার শাহজাদাপুর ইউনিয়নের তিতাসপাড়ার গঙ্গারঘাট এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। পরবর্তীতে বুধবার রাতে আটক রফিককে পুলিশ ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হলে ২০হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১৫দিনের জেল প্রদান করেন আদালত। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন সরাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ মুসা। এ বিষয়ে সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজমুল হোসেন বলেন, আটকের পর অভিযুক্তকে রাতে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হয়। আদালত তাকে ২০হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১৫দিনের জেল দেন। রাতেই জরিমানার টাকা প্রদান করলে অভিযুক্তকে ছাড় দেওয়া হয়।এনিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে কানাঘুষা শুরু হয়েছে যে, সরাইল থানা পুলিশ অর্থের বিনিময়ে আটক রফিককে বাঁচাতে নিয়মিত মামলা না দিয়ে মোবাইল কোর্টে হাজির করিয়ে তাৎক্ষণিক শুধু জরিমানার মাধ্যমে তাকে ছাড় দেওয়া হয়েছে। এনিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। এবিষয়ে সরাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ মুসা বলেন, সব মামলাই নিয়মিত করা যায়। আমরা মোবাইল কোর্টের যে মামলা গুলো করি, সেই অপরাধগুলোও নিয়মিত মামলায় করা যায়। এমন কোন বাধ্যবাধকতা নেই যে নিয়মিত মামলা দেওয়া যাবে না। মোবাইল কোর্টের মামলায় সাজা তাৎক্ষণিক হয়ে যায়। তিনি আরও বলেন, চাল নিয়ে আটক রফিকও নিজেও একজন সরকারি কার্ডধারী সুবিধাভোগী। সে কোন ডিলার নয়, যদি ডিলার হতেন তাহলে তার বিরুদ্ধে আমরা নিয়মিত মামলা দিয়ে দিতাম। সে অন্য সুবিধাভোগীদের কাছ থেকে সরকারি চাল গুলো ক্রয় করে। তাকে বলা হয়েছে, যাদের কাছ থেকে চালগুলো ক্রয় করেছে তাদের নাম ঠিকানা দিতে। যারা চালগুলো বিক্রয় করেছেন, তাদের সুবিধাভোগীর কার্ড বাতিল করা হবে। চাল গুলো উপজেলায় নিয়ে আসা হয়েছে। চলমান কার্যক্রমে চালগুলো বিতরণ করা হবে।