ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার লাউরফতেহপুর ইউনিয়নের লাউর ফতেহপুর  সন্ত্রাসী হামলার শিকার জয়নাল মিয়া( ৩৫) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ রবিবার সন্ধ্যায়  মৃত্যু  হয়েছেে।  বাড়ি
থেকে ডেকে নিয়ে জয়নাল মিয়া (৩৫) নামে একজনকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করা হয়। অবশেষে  ঢাকার একটি হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লরে ৫ দিন পর আজ মৃত্যু হয়।। এই সন্ত্রাসী হামলার সময় এক নারীসহ আরো দুই জন আহত হয়। এ ঘটনায় আহত জয়নালের স্ত্রী রোকসানা বেগম বাদী হয়ে আকবর মিয়াকে প্রধান আসামি করে ১০ জনের নামে গত বুধবার সকালে নবীনগর থানায় একটি মামলা করেছেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার সকালে লাউরফতেহপুর গ্রামের মৃত আবু মিয়ার ছেলে জয়নাল মিয়া বাড়িতে কাজ করছিলেন, এ সময় একই গ্রামের মৃত নাবালক ফকিরের ছেলে আলি আকবর, জয়নালকে বাড়ি থেকে ডেকে পাশের একটি বাড়িতে নিয়ে যায়, সেখানে পূর্ব থেকে ওঁত পেতে থাকা ৭/৮ জনের একটি সন্ত্রাসী দল দেশীয় অস্ত্র দিয়ে অতর্কিত হামলা করে জয়নাল এর উপর, এ সময় সন্ত্রাসীরা জয়নালকে রামদা দিয়ে এলোপাতারি কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। তাকে বাঁচাতে এসে জয়নালের মা ও তার চাচাতো ভাই আহত হয়। পরে স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় জয়নালকে উদ্ধার করে প্রথমে  নবীনগর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকায় রেফার করে। নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রনোজিত রায় ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় আহতের স্ত্রী রোকসানা বেগম বাদী হয়ে ১০ জনের নামে একটি মামলা করেছেন। পরবর্তী সংঘর্ষ এড়াতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আসামীদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
"/>

নবীনগরে কুপিয়ে এক ব্যাক্তিকে কুপিয়ে হত্যা

28 June, 2020 : 5:20 pm ১৭০

নবীনগর।।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার লাউরফতেহপুর ইউনিয়নের লাউর ফতেহপুর  সন্ত্রাসী হামলার শিকার জয়নাল মিয়া( ৩৫) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ রবিবার সন্ধ্যায়  মৃত্যু  হয়েছেে।  বাড়ি
থেকে ডেকে নিয়ে জয়নাল মিয়া (৩৫) নামে একজনকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করা হয়। অবশেষে  ঢাকার একটি হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লরে ৫ দিন পর আজ মৃত্যু হয়।। এই সন্ত্রাসী হামলার সময় এক নারীসহ আরো দুই জন আহত হয়। এ ঘটনায় আহত জয়নালের স্ত্রী রোকসানা বেগম বাদী হয়ে আকবর মিয়াকে প্রধান আসামি করে ১০ জনের নামে গত বুধবার সকালে নবীনগর থানায় একটি মামলা করেছেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার সকালে লাউরফতেহপুর গ্রামের মৃত আবু মিয়ার ছেলে জয়নাল মিয়া বাড়িতে কাজ করছিলেন, এ সময় একই গ্রামের মৃত নাবালক ফকিরের ছেলে আলি আকবর, জয়নালকে বাড়ি থেকে ডেকে পাশের একটি বাড়িতে নিয়ে যায়, সেখানে পূর্ব থেকে ওঁত পেতে থাকা ৭/৮ জনের একটি সন্ত্রাসী দল দেশীয় অস্ত্র দিয়ে অতর্কিত হামলা করে জয়নাল এর উপর, এ সময় সন্ত্রাসীরা জয়নালকে রামদা দিয়ে এলোপাতারি কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। তাকে বাঁচাতে এসে জয়নালের মা ও তার চাচাতো ভাই আহত হয়। পরে স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় জয়নালকে উদ্ধার করে প্রথমে  নবীনগর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকায় রেফার করে। নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রনোজিত রায় ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় আহতের স্ত্রী রোকসানা বেগম বাদী হয়ে ১০ জনের নামে একটি মামলা করেছেন। পরবর্তী সংঘর্ষ এড়াতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আসামীদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

[gs-fb-comments]
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com