গুরু পুর্নিমা কি বা কেন

13 July, 2022 : 2:27 pm ৯০

রিপন।।
আজ ১৩ জুলাই পালিত হচ্ছে গুরু পূর্ণিমা (Guru purnima 2022) উৎসব। এই দিনে পবিত্র নদীতে স্নান করা এবং অভাবীকে দান করার বিশেষ তাৎপর্য রয়েছে। শাস্ত্র অনুসারে.
বেদের রচয়িতা মহর্ষি বেদ ব্যাস আষাঢ় পূর্ণিমার দিনে জন্মগ্রহণ করেন। বেদ প্রথম শিক্ষা দিয়েছিলেন মহর্ষি বেদ ব্যাস, তাই তাঁকে হিন্দুধর্মে প্রথম গুরুর মর্যাদা দেয়া হয়েছে । এই কারণেই গুরু পূর্ণিমাকে ব্যাস পূর্ণিমাও বলা হয়। এই দিনটি গুরুদের পূজার জন্য নিবেদিত।আজকের দিনে ঘর পরিষ্কার করার পর স্নান করে পরিষ্কার কাপড় পরিধান করা উচিত। একটি পরিষ্কার স্থান বা উপাসনালয়ে একটি সাদা কাপড় বিছিয়ে একটি ব্যাস পীঠ তৈরি কয়রে বেদ ব্যাসের ছবি স্থাপন কয়রে উপযুক্ত পুরোহিত দ্বারা যথানিয়মে পুজা অর্চনা করোতে হবে। মহর্ষি বেদ ব্যাস, যিনি পৌরাণিক যুগের মহান ব্যক্তিত্ব, ব্রহ্মসূত্র, মহাভারত, শ্রীমদ ভাগবত এবং অষ্টম পুরাণের মতো চমৎকার সাহিত্য রচনা করেছিলেন, আষাঢ় পুর্নিমায় জন্ম গ্রহন করেছিলেন । তাকে আদি গুরু হিসাবে বিবেচনা করা হয় । গুরু পুর্নিমার এই বিখ্যাত উৎসবটি ব্যাস দেব এর জন্ম বার্ষিকী হিসাবেও অনেক জায়গায় পালন করা হয় । এইদিনে নিজ নিজ গুরুদেব-কে ব্যাসদেব এর অংশ ভেবে পুজা অর্চনা করা উচিত বলে পন্ডিতেরা মনে করেন । গুরু দীক্ষা বা গুরুর কাছ থেকে উপযুক্ত মন্ত্র প্রাপ্তির জন্যু দিনটি প্রশস্থ ( ভাল ) বলেও মনে করা হয় । যদিও শাস্ত্রে “গুরু মন্ত্র” কবে ,কখন কীভাবে নিতে হবে তার উল্লেখ রয়েছে।

[gs-fb-comments]
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com