টিকিট কেটেও ট্রেনে বগি পেলেন না যাত্রী ভোক্তা অধিকারে অভিযোগ

23 August, 2022 : 9:38 am ৫৭

ব্রাহ্মণবাড়িয়া।।
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নির্ধারিত আসনসহ টিকিট কেটেও ট্রেনের বগি খোঁজে না পেয়ে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সহকারি পরিচালক বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন মোঃ রুহুল কুদ্দুছ নামে ভুক্তভোগী এক যাত্রী। গত রোববার দুপুরে তিনি ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ব্রাহ্মণবাড়িয়া কার্যালয়ে এই অভিযোগ দায়ের করেন। লিখিত অভিযোগে ভুক্তভোগী মোঃ রুহুল কুদ্দুছ টিকিট সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান সহজ-সিনেসিস-ডিনসন জেডিকে অভিযুক্ত করা হয়। পাশাপাশি তিনি ট্রেনে কর্তব্যরত গার্ড (পরিচালক) ও টিটিই (ট্রাভেল টিকিট এক্সামিনার) এর বিরুদ্ধেও অসহযোগিতার অভিযোগ করেন। অভিযোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার পশ্চিম মেড্ডার বাসিন্দা মোঃ রুহুল কুদ্দুছ উল্লেখ করেন, গত ১৮ আগস্ট ঢাকা যাওয়ার জন্য তিনি ১৪ আগস্ট উপকুল এক্সপ্রেস ট্রেনের তিনটি টিকিট (একটি প্রাপ্ত ও দু’টি অপ্রাপ্ত বয়স্ক) ক্রয় করেন।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে ঢাকা যাওয়ার টিকিট না পেয়ে তিনি নোয়াখালী-ঢাকার টিকিট কাটেন, যার বগি নম্বর ‘ছ’ ও সিট নম্ব ৩৩ থেকে ৩৫। ১৮ আগস্ট  তিনি ১১ এবং ৬ বছর বয়সি দুই মেয়েকে নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া স্টেশনে এসে ‘ছ’ বগি খোঁজে না পেয়ে ‘চ’ বগিতে উঠেন। ট্রেনটি আশুগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশনে যাত্রাবিরতি দিলে তিনি কর্তব্যরত গার্ডের সহযোগিতা চাইলে ‘ছ’ বগি ট্রেনে সংযুক্ত নেই জানিয়ে তার কিছু করার নেই বলে উল্লেখ করেন। পরবর্তীতে তিনি টিটিই এর সহযোগিতা চাইলে তিনি তাকে পুলিশের ভয় দেখান। এ সময় তার দুই কন্যা কান্নাকাটি শুরু করেন। এ অবস্থায় তিনি ট্রেনের ‘চ’ বগির একটি টয়লেটের সামনে দাঁড়িয়ে মেয়েদেরকে নিয়ে ঢাকায় আসেন।
এ ব্যাপারে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সহকারি পরিচালক মোহাম্মদ মেহেদী হাসান অভিযোগটি পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, এ বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

[gs-fb-comments]
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com